খেলনা কিনেছি…

আসলে আমার মেয়ে-দুটোর জন্মের পর থেকে এতো বছরে পুরো একটা মাস ওদের ছাড়া বাইরে ছিলাম না তো, তাই যেই ক’দিন ছিলাম আমার ও আমার পরিবারের জন্য এটা একটা বিয়োগান্তক ঘটনা ছিলো। যাই হোক, ফিরে আসার আগে কিছু শপিং-এর সাথে মেয়ে-দুটোর জন্যও কিছু খেলনা/উপহার কিনেছি, স্বাভাবিক। কিন্তু কেনার সময় কিছু কিছু বিষয় মাথায় রেখেই কিনেছি। যেমন:
(১) কিছু জিনিষ দুজনের জন্য হুবহু একই কিনেছি।
(২) কিছু জিনিষ দুজনের জন্য দুইরকম কিনেছি। আমার উদ্দেশ্য ছিলো ওরা দুজনে সিদ্ধান্ত নেবে কোনটা কার। এই ক্ষেত্রে উভয়জনকেই হয়তো তার অধিক পছন্দেরটা অপরজনকে দিয়ে দিতে হতে পারে।
(৩) কিছু জিনিষ দুজনের জন্য একটাই কিনেছি যেনো ওরা দুজনে শেয়ার করে খেলে বা শেয়ার করতে বাধ্য হয়। (চাইলে দুটো কিনতে পারতাম।)
(৪) আর কিছু কিছু সুন্দর জিনিষ অন্য বাচ্চার জন্য কিনেছি কিন্তু আমার মেয়ে দুটোর জন্য কিনিনি। আমি চাই ওরা দুজন দেখুক এবং কিছু সুন্দর উপহার না পাবার কষ্টটাও পাক।

আমি এটা বলছি না যে, খেলনা/উপহার কিনতে গিয়ে আমি যা করেছি সেটাই একমাত্র উত্তম পদ্ধতি। আমি শুধু আমার চিন্তা-ভাবনা ও আমার কাজ খুব সংক্ষেপে শেয়ার করলাম আপনাদের সাথে। সত্য কথা বলতে কি, আমি চাই যতটুকু সম্ভব আমাদের কথাবার্তা ও কাজ-কর্মের দ্বারা যেনো আমাদের সন্তানরা কিছু অর্জন করে। এক মাস পর ফিরে আসার সুযোগে উপহার কিনতে গিয়েও আমি এই strategy follow করার সুযোগটা মিস করতে চাই নি।

কেউ কেউ হয়তো বলবেন, “Come on, শিবলী ভাই, this is too much. বাচ্চাদের খুশি করার জন্য উপহার কিনবেন তাতেও এতো চিন্তা করার কি আছে ভাই! Just buy something they would like & enjoy to play with.” আসলে সময় চলে যাবে, আমাদের সন্তানরা আমাদের চোখের সামনেই কবে যে বড় হয়ে যাবে তা আমরা মা-বাবা হয়েও হয়তো টের পাবো না। হঠাৎ যখন টের পাবো, তখন যেনো আমরা মা-বাবারা আফসোস না করি যে, ইস্‌ তখন যদি বিভিন্ন বিষয়ে সন্তান লালন পালনে একটু সচেতন থাকতাম!🙂

This discussion on facebook.

This entry was posted in শিশু লালন পালন বিষয়ক. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s