মিউজিক ভিডিও না চালালে ও কিছুই খেতে চায়না।

image source: internet.ইফ্‌তার করে ফিরছিলাম কলিগ্‌দের সাথে। হঠাৎ একজন কলিগের মেয়ে নিয়ে কথা উঠলো। জানেনি তো, আমি বাচ্চাদের লালন পালন বিষয়ে একটু আগ্রহী আর কে কিভাবে লালন পালন করছেন সেই বিষয়গুলিও জানার চেষ্টা করি ও পরামর্শ দিয়ে থাকি প্রয়োজনে। তো, জানতে চাইছিলাম ওনার মেয়ের development নিয়ে। তো কথা প্রসংগে কলিগ্‌ (বাচ্চার বাবা) জানালেন যে, তার মেয়েকে সহজে ভালো মতো খাওয়ানো যায় না, যদি না টিভিতে কিছু চালিয়ে না দেয়া হয়। এমনকি উনি মাঝে মাঝে ল্যাপটপেও music video চালিয়ে দিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ায় থাকেন। আমি জানি এই বদ অভ্যেসটা আমরা হাজার হাজার মা-বাবারা তাদের শিশুদের ভেতরে রপ্ত করিয়ে দিয়েছি আর পরে মা-বাবারাই অভিযোগ করি নিজ সন্তান সম্পর্কে, “টিভি না চালিয়ে দিলে ও কিছুই খেতে চায়না।”। তো সমস্যাটা কোথায়, তাই না? আমি খুব অবাক হয়েছি (কষ্টও পেয়েছি চরমে চরম) যখন বাবাটি অনেকটা এমন কথা বললেন, “আমার মেয়েকে খাওয়ানো সবচেয়ে সহজ হয় যখন মুন্নি বদনাম হুয়ি আর শিলাকি জাওয়ানি গান চালিয়ে দেয়া হয়।” (উনি music video টির কথাই বলেছিলেন।)

বোদ্ধা পাঠকদের হয়তো আর পড়ার দরকার নেই। আমি আর কি বলবো বা বলে থাকতে পারি তা আপনি সহজেই বুঝে গেছেন। তো, ঐ কথাটা শোনার সাথে সাথে আমি চরম হতাশা প্রকাশ করে তাকে কিছু কথা বলি, পরামর্শ দেই। উনি বললেন, “অন্য কিছু চালায় দিলে এতো সহজে খায়না। কিন্তু এই music video দুটি খুবি পছন্দ করে আমার মেয়ে।”

আমারতো বিশ্বাস হয়না যে, এই পৃথিবীতে এমন কোন বাচ্চা আছে কি, যে বলে রেখেছে, item song না দেখালে সহজে খাবেনা? উফ্‌ আমি চরম কষ্ট পেয়েছি! তো যখন ওনাকে বোঝাচ্ছিলাম ওগুলি না দেখাবার জন্য, একটা পর্যায়ে আরেক কলিগ্‌ বললেন অনেকটা এই রকম, “শিবলী ভাই, তাও ভালো ওনার বাচ্চা এখন ছোট। এখন দেখলেও সমস্যা হবেনা।…” যে পাঠকগন এখনো পড়ছেন, আপনাদেরকে বিশেষভাবে বলছি যে, এই ধরনের বিশাল ভুলে ডুবে থাকবেন না। শিশুরা ছোট, বয়স মাত্র ২-৩ বা ৪ বছর, কিংবা হয়তো অল্প অল্প কথা ফুটেছে মাত্র, এখন ঐ সব দেখলে সমস্যা নেই বলে দেখাতেই থাকবেন এই ধরনের চিন্তাও করবেন না প্লীজ্‌ প্লীজ্‌ প্লীজ্‌। ওরা কিন্তু সব বোঝে, সব। ওরা কিন্তু এই zero বয়স থেকেই শিখছে। আপনি যা শেখান তাতো শেখেই, আর যাও বা না শেখান বলে আপনি মনে করছেন, আসলে সে সেগুলিও শেখে। কিন্তু কেমন করে সেগুলিও শেখে সেটাই হয়তো আমরা অনেকে বুঝিনা।

কার কাছে যেন শুনলাম, তার মেয়ে সবে স্কুলে ভর্তি হয়েছে। তো, টিচার জিজ্ঞেস করেছে, তোমার নাম কি? উত্তরে মেয়েটি বলেছিলো, My name is Shila।

আজ হাতে সময় একদম কম বিধায় সমাধান নিয়ে লিখলাম না। তবে সমাধানের কিছুটা ড্রাফ্‌ট করা আছে। শিগ্রই প্রকাশ করবো।

শিশুদের নিয়ে আমার আর সকল লেখাগুলি পেতে এখানে ক্লীক্‌ করুন। আর আপনার শিশু বিষয়ে কোন প্রশ্ন থাকলে এখানে প্রশ্ন করতে পারেন।

Advertisements
This entry was posted in শিশু, শিশুরযত্ন. Bookmark the permalink.

4 Responses to মিউজিক ভিডিও না চালালে ও কিছুই খেতে চায়না।

  1. Arafat Rahman বলেছেন:

    শিশু মনোবিজ্ঞান নিয়ে আমার আগ্রহ আছে। আপনার লেখা গুলো পড়ে খুবই ভাল লাগলো। আমি যদি কোন উপকারে আসতে পারি জানাবেন।

  2. Sultan বলেছেন:

    Amar Baby r boyosh 8 month Tai Amake Ei Bepare Ektu shikhte hosche. Apnar post gulo valo lagche. Bookmark E rekhe diyechi.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s