শিশুর সাথে কখনই এই কাজটি করবেন না…

সর্বশেষ সম্পাদনা হয়েছে ১-ডিসেম্বর-২০১০
এই পোষ্টটির একটি অডিও ভার্সণ পাবেন এখানে।

আমার এই লেখা শিশুদের জন্য নয়। বড়দের জন্য, যারা শিশুদের সাথে ভুল করে নানা সময় অন্যায় করি। ক্ষতি করি আমাদের প্রিয় সন্তানদের, ভাগ্নে-ভাগ্নীদের, ভাতিজা-ভাতিজীদের…

আমরা অনেকেই শিশুকে ক্ষেপাই এই ধরনের কথা বলে:
আমরা: সুনাতা তুমি পঁচা
সুনাতা: না আমি ভালো
আমরা: না তুমি খুবি পঁচা
সুনাতা (কাঁদো কাঁদো স্বরে): না আমি ভালো তো
আমরা: তাহলে তোমার আব্বু পঁচা।
সুনাতা (চোখে পানি এসে গেছে): আমার আব্বুও ভালো।
আমরা: তবে তোমার আম্মু পঁচা।
সুনাতা (কান্না শুরু হয়েই গেছে): আম্মুও অনেক ভালো।
আমরা: তুমি পঁচা, পঁচা পঁচা…

এইভাবে চলতে থাকে ঐ শিশুটির প্রতি আমাদের অত্যাচার। আমরা কথাগুলি হাসতে হাসতেই বলি আর তাই ঐ শিশুটির বড়রা এটাকে কিছুই মনে করেন না। (আমরা বড়রা হয়তো তখনি রাগি যদি বড় কেউ আমার শিশুকে অযথা মারে। কিন্তু শুধু কিছু আচরনের দ্বারাও যে একটি শিশুর ক্ষতি হয় সেটা আমরা বড়রা বুঝিনা বলে আমরাও পঁচা পঁচা কথার সাথে হাসি) কিন্তু আপনারা কি জানেন একটি শিশুকে কখনই ক্ষেপানো উচিত নয়? একটা শিশুকে কখনই খারাপ গুনে ডাকা ঠিক নয় এবং তার কাছের জনদেরকেও কখনই খারাপ বলতে হয়না।

একটি শিশু জন্মের পর থেকে তার মা-বাবা (ও আরো আত্নীয়কে) কে খুব কাছে থেকে দেখে। সে বুঝে যায় যে, এনারা আমার নিরাপত্তা দেন, এনারা আমার ক্ষুধায় খাবার দেন, অন্ধকারেও এনাদের কথা শুনতে পাই, আমি কাঁদলে এনারা ছুটে আসেন, আমার অসুস্থতায় এনারা পাশে থাকেন আর তাই এই খুব ভালো লাগা মানুষদেরকে যখন আমরা পঁচা বলি, একটি শিশু হিসাব মেলাতে পারেনা একদম। তারকাছে কথাগুলি হজম করতে খুব কষ্ট হয়। আর তাই অতি নিমেষেই ঝর ঝর করে কেঁদে ফেলে।

দোহাই আপনাদের যারা যারা এই লেখা পড়লেন, আর কখনই কোন শিশুকে এইভাবে ক্ষেপাবেন না। এভাবে ক্ষেপিয়ে মুলত আপনি নিজেই ঐ শিশুটির অপ্রিয় পাত্র হবেন। আপনার আপনজনদেরকে এই ব্যাপারটি জানান। শুধু একটি বার ভেবে দেখেন যে, এই প্রাপ্ত বয়স্ক বয়সে যদি আজ আমাকে কেউ আমার পিতা-মাতার চারিত্রিক কোন মারাত্নক দোষের ঘটনা তুলে ধরে তবে আমার কেমন লাগবে! ঠিক তেমনি লাগে একটি শিশুর কাছে যদি সে তার মা-বাবাকে পঁচা বলে কেউ। কেবল মাত্র ‘পঁচা’ শব্দটাই তার কাছে যথেষ্ট ঘৃন্য একটি শব্দ।

আপনার সন্তান বিষয়ে কোন প্রশ্ন করতে এখানে ক্লীক্‌ করুন।


No reproduction of this article may be made including electronic or paper reproduction without the express written consent of the author.


২য় পাতায় এই লেখাটার উপর বিভিন্ন ফোরাম ও ব্লগে পাওয়া কিছু মন্তব্যসংগ্রহ পাওয়া যাবে।

Advertisements
This entry was posted in আচরন, শিশু, শিশুরযত্ন and tagged . Bookmark the permalink.

শিশুর সাথে কখনই এই কাজটি করবেন না…-এ 6টি মন্তব্য হয়েছে

  1. সুশান্ত কর বলেছেন:

    আমি আমার মেয়েকে প্রায়ই ‘ভালো মেয়ে’ বলে সম্বোধন করে থাকি। তাই আপনার কথা বুঝতে পারি। ঠিক লিখেছেন।

  2. এক্কেবারে সত্যি কথা বলেছেন ভাই! আর বেশ কিছুকাল যাবত দেখে আসছি বাবা-মায়েরা নিজেদের সামনে ই ঝগড়াঝাটি করেন বা তর্ক করেন যা শিশুটির মনে গেঁথে যায় এবং সে যখন পরবর্তী কালে সেই রূপ আচরণ করে তখন সে তাদেরই হাতে বকুনি ও মার খায়। বড়রা প্লিজ ভুলে যাবেন না , শিশুরা ছোটবেলায় ময়নাপাখির মত, যা দেখে তাই শেখে, যা শোনে তাই শেখে ! তাই বাবা-মা হবার আগে এই গুলো ভেবে নিয়ে পদক্ষেপ নেবেন !

  3. তানিয়া বলেছেন:

    এগুলো একধরনের bullying. বুলিং এর শিকার শিশুরা পরবর্তীতে নিজেরাও অন্যদের বুলিং করে।

  4. শান্ত বলেছেন:

    এটাত ভেবে দেখিনি! ঠিকই বলেছেন… আমাদের একেবারেই উচিত নয় এরকম আচরণ করা।

  5. Mrinmoy বলেছেন:

    amar childhood a amake oneke ekorom khepato,.. and i used to feel like beating and biting them!!! oneke abar baby k jigesh kore ammu bhalo na abbu bhalo… ami amar baby k shikhai shobbai bhalo.. keu pocha na… or uttor shune oneke hashe – bole baby ekhon thekei diplimatic hoye gese… tokhon khub kharap lage j boro rai chotoder modhdhe baba maa er comparison dhukiye disse… dui ekbar nije hoyto karo upor raag kore baby er shamne moner dukhkhe bodnam koresi, amar baby o ekkebare jayga moto giye report korese, i mean jar naame bolesi tar kase giye report korese je tumi amar maar shathe bhalo behave koroni, maa tomake tai egulo egulo boleche… ufffff!!!!! thats too embarrasing!!! (sorry to say, amar childhood a i did the same sometimes with my mom!!!) so nijer shikhkha thekei ekhon baby er shamne onno karo bodnam kori na, karo shathe amar jhamela holeo baby er shamne discuss kori na…

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s